অনলাইন ইনকাম বাংলা কোর্স পর্ব 1

অনলাইন ইনকাম পর্ব 1

 

 আজ আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করব অনলাইন ইনকাম  ভিত্তিক কিছু বিষয় নিয়ে। যা আপনাদের অনলাইন ইনকাম সম্পর্কে কিছুটা হলেও ধারণা দিবে   এবং অতি শীঘ্রই আমাদের এই ওয়েবসাইটটিতে অনলাইন সম্পর্কিত আরও অনেক আর্টিকেল দেখতে পাবেন ।  যারা অনলাইনে কাজ করতে ইচ্ছুক কিন্তু উপযুক্ত প্রশিক্ষণ না পাওয়ার কারণে কাজ করতে পারছেন না তাদের জন্য আমাদের এই ওয়েবসাইট নিয়ে আসতেছে  একটি ফ্রি কোর্স ।

 

অনলাইন ইনকাম কোর্স এর  এই প্রথম পর্বে আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করব কিছু বেসিক জিনিস নিয়ে যেগুলো সম্পর্কে সবারই কমবেশি ধারণা আছে।  আজকের এই আলোচনা পর্ব শুরু করা যাক। আলোচনার শুরুতেই আমি যে বিষয়টি নিয়ে কথা বলব সেটি হলো যে কেউ কখনোই একবারে কোন কিছুই শিখতে পারে না। তবে  প্রতিনিয়ত চর্চার মাধ্যমে যে কেউ যেকোনো বিষয়ে দক্ষ হয়ে উঠতে পারেন। অনেকেই ভাবেন অনলাইনে ইনকাম করা অনেক সহজ আবার অনেকেই ভাবেন যে অনলাইনে ইনকাম করা হয়তোবা অনেক কঠিন।  আসলে কোন কিছু খুব সহজ অথবা কোন খুব কঠিন হওয়াটা আমাদের নিজেদের ওপর ডিপেন্ড করে কারণ আমরা কোন জিনিসটা কিভাবে নিব সেটি নির্ভর করবে আমাদের ইচ্ছার ওপর। যাইহোক অনলাইনে কাজ করা আহামরি কোন  কিছু নয় তবে তার জন্য প্রয়োজন উপযুক্ত প্রশিক্ষণ। একটু ধৈর্য ধরে চেষ্টা করলে আপনিও অনলাইন থেকে আয় করতে পারবেন।

একজন ফ্রিল্যান্সার হওয়ার জন্য আপনার প্রয়োজন শুধুমাত্র একটি ডেস্কটপ কম্পিউটার এবং একটি ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট কানেকশন। আজ আমি আপনাদের নির্দিষ্ট কোন  বিষয় নিয়ে কোন কিছুই বলবো না শুধুমাত্র অনলাইনে ইনকাম সম্পর্কিত নির্দিষ্ট কিছু বিষয়ে আলোচনা করব।

 

যা যা প্রয়োজন ফ্রিল্যান্সার হওয়ার  জন্য  

১.  ইমেল এড্রেস প্রয়োজন

অনলাইনে ইনকাম করতে সবার আগে আপনার  একটি ইমেইল এড্রেস প্রয়োজন, gimal.com থেকে আপনি আপনার  ইমেইল একাউন্ট খুলতে পারবেন পারো অনলাইনে ওয়েবসাইট এবং ওয়েবসাইটে একাউন্ট খুলতে হলে আপনার প্রয়োজন একটি ইমেইল এড্রেস।  ফেইসবুক ডটকম একাউন্ট খুলতে হলে ফেইসবুক যেমন আপনার কাছ থেকে একটি মোবাইল নাম্বার অথবা একটি ইমেইল এড্রেস চাই ঠিক তেমনিভাবে  ফ্রিল্যান্সিং সাইটগুলোতে অ্যাকাউন্ট খুলতে হলে আপনার একটি নির্দিষ্ট ইমেল এড্রেস প্রয়োজন।

২.  লেনদেনের জন্য একটি  ই-ওয়ালেট প্রয়োজন

চিন্তা করার কোনো কারণ নেই কারণ বাংলাদেশে  বর্তমানে এমন অনেক ফ্রিল্যান্সার আছে যারা বাংলাদেশ থেকে বহির্বিশ্বের সাথে লেনদেন করতেছে  ইন্টারনেট ওয়ালেট এর মাধ্যমে। ই ওয়ালেট অথবা ইন্টারনেট ওয়ালেট কি? যদি আপনি না জানেন যে ইন্টারনেট ওয়ালেট কি? তাহলে ইন্টারনেট  ওয়ালেট সম্পর্কিত আর্টিকেলটি পড়ে আসুন তাহলে আপনি ইন্টারনেট ওয়ালেট সম্পরকিত সকল উত্তর সেখানে পেয়ে যাবেন। আমি অনলাইনে লেনদেন করার  জন্য একাউন্ট সম্পর্কে ধারণা দিতেছি।

যেমন ধরুন   পেপাল ,পেইনর,   নেটেলার, ওয়েব মানি অথবা আপনি ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে লেনদেন করতে পারেন।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ কারো যদি কোন প্রশ্ন থাকে অথবা কোন কিছু বুঝতে সমস্যা হয় তাহলে সরাসরি  ইনবক্সে কমেন্ট করতে ভুলবেন না।


তাহলে বন্ধুরা    আজকের পর্বের আলোচনা এখানেই শেষ  করতেছি , এর পরের পর্বে আবার আসব নতুন কিছু নিয়ে আপনাদের মাঝে শেয়ার করতে। সবাই ভাল থাকবেন সুস্থ থাকবেন , আজকের মত  এখানেই বিদায় নিতেছি।

Emoo Blaze

Add comment